দ. কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের কথা ভাবছে ইরান

তীক্ত অভিজ্ঞতা ভুলে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের কথা ভাবছে ইরান। ইরানের প্রবীণ সংসদ সদস্য সাইয়েদ মোহাম্মাদ-রেজা মিরতাজেদ্দিনি বলেছেন, দক্ষিণ কোরিয়ায় আটকেপড়া তার দেশের অর্থ ফেরত না দেওয়ার ঘটনায় সিউলই বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তিনি বলেন, দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক রক্ষা করার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করবে ইরান।

দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে ইরানের তেল বিক্রি বাবদ ৭০০ কোটি ডলার পাওনা রয়েছে। কিন্তু সিউল ইরানের ওপর আমেরিকার একতরফা নিষেধাজ্ঞার অজুহাতে ওই অর্থ ইরানকে পরিশোধ করছে না। এ নিয়ে তেহরান ও সিউলের মধ্যে গত কয়েক মাস ধরে টানাপড়েন চলছে।

এ সম্পর্কে মিরতাজেদ্দিনি বলেন, যে দক্ষিণ কোরিয়া আমেরিকার হাতের ইশারায় ওঠবস করে তার সঙ্গে আর বাণিজ্যিক লেনদেন করবে না ইরান। এমনকি সিউলের সঙ্গে সম্পর্ক থাকবে কিনা তাও বিবেচনা করে দেখবে তেহরান।

পারস্য উপসাগরে দুষণ সৃষ্টি করার অভিযোগে ইরানে আটক দক্ষিণ কোরিয়ার একটি জাহাজ সম্পর্কে ইরানের এই সিনিয়র সংসদ সদস্য বলেন, আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে দক্ষিণ কোরিয়ার জাহাজটি আটক করা হয়েছে। সিউল তার প্রতিশ্রুতি পূরণ না করা পর্যন্ত জাহাজটিকে মুক্ত করা হবে না।

শেয়ার করুন-

Leave a Reply